Thursday, June 20, 2024

Logo
Loading...
google-add

Murshidabad: শিব ভক্তদের উপর হামলা! মন্দির আক্রমণের অভিযোগ সংখ্যালঘুদের বিরুদ্ধে

Sweta Chakrabory | 14:03 PM, Mon Apr 15, 2024

নিউজ ডেস্ক: নীল ষষ্ঠীর(Nil Sasti) পরের দিনই মন্দির ভাঙচুরের অভিযোগ মুর্শিদাবাদে(Murshidabad), শুধু মন্দির ভাঙচুরই নয় শিবের স্তুতি করার অপরাধে গাজনে সন্ন্যাস নেওয়া কয়েকজনের ওপর সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের দুষ্কৃতিরা হামলা চালায় বলে অভিযোগ।

জানা গেছে, শনিবার বিকেল ছটা নাগাদ মুর্শিদাবাদ জেলার বেলডাঙা থানার কামনগর পঞ্চায়েতের কামনগর গ্রামে গাজনে সন্ন্যাস নেওয়া কয়েকজন গ্রামবাসীরা টোটোয় চড়ে গ্রামের মন্দিরে(Temple) ফিরছিলেন। সেই সময় তারা ভগবান শিবের স্তুতি করার অপরাধে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের দুষ্কৃতিরা তাদের ওপর হামলা চালায় বলে অভিযোগ৷ হামলার ঘটনায় ১৮-২০ জন সন্ন্যাসী আহত হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। আহতদের অভিযোগ রীতিমত মারধর করা হয় তাদের।

 এ ঘটনায় কামনগর পঞ্চায়েতের বিজেপি(BJP) প্রধান বাপন ঘোষ জানিয়েছেন, শুধু গাজনের সন্ন্যাসীদের উপর হামলাই নয়, বিজেপি পার্টি অফিসে আগুন লাগিয়ে দেওয়া থেকে শুরু করে একটা মুদিখানা দোকানে ভাঙচুরও চালায় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের দুষ্কৃতিরা। এ নিয়ে যত দ্রুত সম্ভব থানায়(Police Station) অভিযোগ দায়ের করবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

অন্যদিকে আবার একইদিনে বেলডাঙা, শক্তিপুর,সালার থানা এলাকার কুমারপুর, মির্জাপুর তালিতপুরসহ একাধিক এলাকার মন্দিরে হামলা এবং প্রতিমা ভাঙচুরের অভিযোগ উঠেছে। কুমারপুরের শিবমন্দিরের(shiv Temple) ভিতরে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের দুষ্কৃতিরা প্রস্রাব করে বলেও অভিযোগ।

এ প্রসঙ্গে মন্দিরে ভাঙচুরের একটি ভিডিও ফুটেজ নিজের এক্স হ্যান্ডেলে পোস্ট করেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী(Suvendu Adhikari), পোষ্টে তিনি লিখেছেন, "মুর্শিদাবাদ জেলার বেলডাঙ্গা থানার অন্তর্গত মৌজামপুর ও মির্জাপুরে দুপুর থেকে দুষ্কৃতীরা ধর্মীয় স্থান ভাঙচুর করছে। এমনকি তারা নিরপরাধ মানুষের বাড়িঘর টার্গেট করে হামলা চালাচ্ছে। পরিস্থিতি হাতের বাইরে চলে যাওয়ায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে । আমি মুখ্য সচিব শ্রী বি. পি. গোপালিকা (আইএএস), ডিজিপি ডব্লিউ বি পুলিশ শ্রী সঞ্জয় মুখার্জি (আইপিএস), এডিজি শ্রী মনোজ কুমার ভার্মা কে (আইপিএস) অনুরোধ করছি, অবিলম্বে এ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করুন এবং যত তাড়াতাড়ি সম্ভব পরিস্থিতি স্বাভাবিক করুন। নির্বাচন কমিশনের(Election Commission) উচিত সচেতন হওয়া এবং এলাকায় স্বাভাবিকতা ফিরিয়ে আনার জন্য যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহন করা।"

google-add
google-add
google-add

সাম্প্রতিক খবর

ভিডিয়ো

google-add

দেশান্তর

google-add
google-add

স্বাস্থ্য

google-add
google-add