Monday, March 04, 2024

Logo
Loading...
google-add

Judicial Contoversy: বিচারপতিদের দ্বৈরথে লজ্জিত সুপ্রিম কোর্ট! মামলা সরে গেল অভিজিৎ গঙ্গোপধ্যায়ের বেঞ্চ থেকে, দায়িত্ব কাকে?

Editor | 18:38 PM, Tue Jan 30, 2024

নিউজ ডেস্ক: শিক্ষা সংক্রান্ত সমস্ত মামলা সরল বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের বেঞ্চ থেকে। এই সংক্রান্ত আর কোনো মামলার শুনানি হবে না বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের এজলাসে। সমস্ত মামলা তাঁর হাত থেকে সরিয়ে নিয়ে দায়িত্ব দেওয়া হল হাইকোর্টের অন্য এক বিচারপতিকে। আজ এ কথাই একটি নির্দেশিকায় জানিয়ে দিল কলকাতা হাই কোর্ট। প্রসঙ্গত মঙ্গলবারই সংঘাত লেগেছিল কলকাতা হাইকোর্টের দুই বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় এবং বিচারপতি সৌমেন সেনের মধ্যে। মেডিক্যালে ভর্তির মামলায় সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিয়েছিলেন বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়, সেই নির্দেশ খারিজ করে দিয়েছিল বিচারপতি সেনের ডিভিসন বেঞ্চ। তারপরই বিচারপতি সেনে বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ তুলে সেই নির্দেশ খারিজ করে দিয়েছিলেন বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়। পাশাপাশি তিনি সিবিআইকে তদন্ত চালিয়ে যাওয়ারও নির্দেশ দিয়েছিলেন।

মঙ্গলবার শিক্ষা সংক্রান্ত মামলা থেকে সরে দাঁড়িয়েছিলেন হাইকোর্টের বিচারপতি সৌমেন সেন। তাঁর এবং বিচারপতি উদয় কুমারের ডিভিসন বেঞ্চে এদিন উচ্চ প্রাথমিক মামলার শুনানি ছিল। সেই মামলায় আবেদনকারীদের আইনজীবী কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের প্রসঙ্গত তোলেন। তারপরই এই মামলা থেকে সরে দাঁড়ান বিচারপতি সৌমেন সেন। তিনি পরিস্কার জানান, ‘আমি বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়কে নিয়ে কিছু বলতে চাই না। যথেষ্ট হয়েছে। এই আদালত অপমানিত হয়েছে। সংবাদমাধ্যমে সকলেরই বলার অধিকার রয়েছে। বিচারপতিদের কাজ নির্দেশ দেওয়া। আমার কিছুই বলার নেই”। অন্যদিকে দুই বিচারপতির সংঘাত প্রকাশ্যে আসার পরই স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে পদক্ষেপ করে সুপ্রিম কোর্ট। প্রধান বিচারপতি টিএস শিবজ্ঞানম হস্তক্ষেপ করেন। তিনি বলেন, “এই পরিস্থিতির জন্য আমি দুঃখিত এবং লজ্জিত। আইনের এই মন্দির থেকে এটা আশা করা যায় না।

হাইকোর্টের নিয়ম অনুযায়ী সাধারণত বিচারপতিদের নির্দিষ্ট বিষয় থাকে বিচার্য হিসেবে। সেই অনুযায়ী এতদিন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ই শুনতেন প্রাথমিক শিক্ষা সংক্রান্ত মামলাগুলি। হাই কোর্টের রস্টার বা দিনলিপি নিয়ে এদিন সিদ্ধান্ত নেন সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি। এদিন তিনিই লজ্জিত হওয়ার মন্তব্য করার পর এই মামলা থেকে সরিয়ে দেন অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়কে। প্রধান বিচারপতির স্বাক্ষরিত নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের হাতে থাকা সমস্ত শিক্ষা সংক্রান্ত মামলার এখন থেকে শুনানি হবে আরেক বিচারপতি রাজশেখর মান্থার বেঞ্চে। এবং বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় শুনবেন শ্রম এবং শিল্প আইন সংক্রান্ত মামলা।

তবে এই নির্দেশিকায় বিচারপতি বদল কেনো হচ্ছে তার কোনো ব্যাখ্যা দেওয়া হয়নি। মঙ্গলবার দুপুরের দিকে যে সমাধানের কথা বলা হয়েছিল সুপ্রিম কোর্টের তরফে বিচারপতি বদল সেই সমাধান কি না তা স্পষ্ট হয়নি ফলত। প্রসঙ্গত এর আগে বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় প্রাথমিক শিক্ষা সংক্রান্ত মামলায় একের পর এক নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত নিয়ে রাজ্য রাজনীতিতে হইচই ফেলে দিয়েছিলেন। বারবার বিতর্কের শিরোনামেও উঠে এসেছিলেন তিনি। তবে সুপ্রিম কোর্টের এই নির্দেশ রাজ্যের শাসক দলের কাছে অনেকটাই স্বস্তির বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

google-add
google-add
google-add

Health And Environment

Spiritual

google-add

National News

google-add

Education

google-add
google-add
google-add

Politics

google-add
google-add